1. jasim3444@gmail.com : Coxtribune.com :
  2. jasimnahid555@gmail.com : Jasim Nahid : Jasim Nahid
  3. mdboshirulla@gmail.com : MD Boshir : MD Boshir
  4. mohammadsiddique8727@gmail.com : Md Siddique : Md Siddique
  5. tribunecox@gmail.com : Jasim Uddin : বশির উল্লাহ
কালারমারছড়ায় হেফাজত ইস্যুতে নিরীহ ব্যবসায়ী মোস্তফা কামালকে আসামী করার অভিযোগ - Coxtribune.com
সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ১২:৩৭ পূর্বাহ্ন

কালারমারছড়ায় হেফাজত ইস্যুতে নিরীহ ব্যবসায়ী মোস্তফা কামালকে আসামী করার অভিযোগ

ডেস্ক নিউজ
  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৮ এপ্রিল, ২০২১
  • ৭৩ বার ভিউ

মহেশখালীর কালারমারছড়া ইউনিয়নে হেফাজত ইস্যু নিয়ে মামলায় নিরীহ ব্যবসায়ী মোস্তফা কামালকে আসামি করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এমনটি হলে প্রকৃত আসামীরা পার পেয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন সচেতন মহল ।

হেফাজতের তান্ডবে মহেশখালীর বিভিন্ন সরকারি স্থাপনা, আওয়ামীলীগের অফিস, সাধারণ মানুষের ঘরবাড়ী সহ সংখ্যালঘুরাও বাদ যায়নি। উক্ত ন্যাক্কারজনক হামলার ঘটনায় আসামী করা হয়েছে মহেশখালীর কালারমারছড়া ইউনিয়নের বাসিন্দা হারুন তাহেরের পুত্র ব্যবসায়ী মোস্তাফা কামাল আজাদ কে ।

পুলিশের করা মামলায় তাকে ১৯ নং আসামী করা হয়েছে। মামলায় তার মতো একজন নিরপরাধ ব্যাক্তি আসামী হওয়ায় প্রকৃত অপরাধীরা আড়ালে থেকে যাবে বলে মনে করেন অনেকেই। তাই সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে নিরপরাধ ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে প্রকৃত দোষীদের শাস্তি প্রদানের দাবী জানানো হয়েছে ।

ওইসময়ে তিনি ঘটনাস্থলে না থাকলেও প্রশাসনকে ভুল তথ্য দিয়ে তাকে এ মামলায় আসামী করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।তিনি একজন ব্যবসায়ী, তিনি কোন রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত নেই বলেও জানান এলাকাবাসী। উল্লেখ্য ব্যবসায়ী মোস্তফা কামাল গণমাধ্যম কর্মী এরফান হোছাইনের বড় ভাই।

স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা বদিউল আলম জানান, মোস্তফা কামাল একজন সফল ব্যবসায়ী , তাকে এলাকার সবাই ভদ্র লোক হিসেবে চিনেন এছাড়া ঘটনাকালে তিনি আমাদের সাথে রাতের খাবার খাচ্ছিলেন ও সাথে ছিলেন, কিন্তু মহেশখালীতে সৃষ্ট হেফাজতের নজীরবিহীন তাণ্ডবে পুলিশের দায়ের করা মামলায় তাকে আসামী করা হয়েছে। আমরা এতে ক্ষোভ প্রকাশ করছি। সুষ্ট তদন্তের মাধ্যমে নিরপরাধ ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে প্রকৃত অপরাধীদের আসামী করার অনুরোধ জানান তিনি ।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক জেলা পর্যায়ের একজন কর্মকর্তা জানান, যে রাতে ঘটনা হয়েছে সেদিন গ্রামের বাড়িতে মোস্তাফা কামাল সহ রাত ৯ টা থেকে প্রায় ১২ টা পর্যন্ত আমরা ঘটনাস্থল থেকে প্রায় ৩ কি.মি দুরে একটি দাওয়াতে ছিলাম। তাই তাকে মামলায় আসামী করাটা দুঃখজনক এবং আশা রাখি প্রশাসন তদন্ত সাপেক্ষে এব্যাপারে ব্যবস্থা নেবে।

উক্ত ৩ এপ্রিল রাত অনুমান ৯ঃ৩৫ ঘটিকায় হেফাজতের তান্ডবলীলায় সবচেয়ে আহত ও ক্ষতিগ্রস্থ হয় কালারমারছড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সেক্রেটারি কলিমুল্লাহ আহসান মুন্না। ফলে মুন্নাসহ অনেককে সাক্ষী রেখে মহেশখালী থানার এস আই আবু বক্কর সিদ্দিক নিজে বাদী হয়ে মামলা করেন (মামলা নং ০৪, ০৪/০৪/২১) ।কলিম উল্লাহ হাসান মুন্না বলেন, হেফাজতের তান্ডবলীলায় তাকে আমি দেখিনি।

মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)র কাছে আবেদন, অবিলম্বে নিরপরাধ মোস্তফা কামাল কে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হউক। পাশাপাশি প্রকৃত অপরাধীদের শনাক্ত করে কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করা ইউক।

মহেশখালী থানার (ওসি) বলেন, নিরীহ কাউকে মামলার আসামী করা হবেনা। আর যদি ভুলক্রমে এ রকম আসামী করা হয় তাহলে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে তাকে বাদ দেওয়া হবে।

সাংসদ আশেক উল্লাহ রফিক বলেন প্রকৃত দোষীদের আসামি করে নিরীহ লোকদের বাদ দেওয়া হবে। তবে কোন অপরাধী রেহাই পাবেনা বলে তিনি জানান।

দৈনিক ককক্সবাজার 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2020 coxtribune.com
Desing & Developed BY Serverneed.com
error: Content is protected !!