1. jasim3444@gmail.com : Coxtribune.com :
  2. jasimnahid555@gmail.com : Jasim Nahid : Jasim Nahid
  3. mdboshirulla@gmail.com : MD Boshir : MD Boshir
  4. mohammadsiddique8727@gmail.com : Md Siddique : Md Siddique
  5. tribunecox@gmail.com : Jasim Uddin : বশির উল্লাহ
সরকারি-বেসরকারি কারো সহায়তা না পেয়ে গ্রামবাসীর স্বেচ্ছাশ্রমে কাঠের সেতুর নির্মাণ - Coxtribune.com
রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ১০:৫৯ অপরাহ্ন

সরকারি-বেসরকারি কারো সহায়তা না পেয়ে গ্রামবাসীর স্বেচ্ছাশ্রমে কাঠের সেতুর নির্মাণ

তৌকির আহাম্মেদ হাসু, সরিষাবাড়ী (জামালপুর) :
  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ৮ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৮৬ বার ভিউ

সরকারি-বেসরকারি কারো সহায়তা না পেয়ে অবশেষে গ্রামবাসীরা নিজেদের উদ্যোগে জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে চর রৌহা গ্রামে ঝারকাটা নদীর ও পর গ্রামবাসীর উদ্যোগে স্বেচ্ছাশ্রমে ও নিজেদের অর্থায়নে কাঠের সেতুর নির্মাণ কাজশুরু হয়েছে। কাঠের সেতুটির নির্মিত হলে ১৫টি গ্রামের ২ লক্ষাধিক মানুষ ভোগান্তি থেকে রক্ষা পাবে। কাঠের সেতুটির দৈর্ঘ্য ৩১০ ফুট ও প্রস্থ ৮ ফুট। কাঠের সেতুটি নির্মাণ করতে ব্যয় হবে প্রায় ১১ লাখ টাকা। ১৫ জানুয়ারির মধ্যে সেতুটির নির্মাণ কাজ শেষ করা হবে।

গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সাতপোয়া ইউনিয়নের চর রৌহা গ্রামের ভেতর দিয়ে ঝারকাটা নদী প্রবাহিত হয়েছে।চররৌহা,ছাতারিয়া,চর সরিষাবাড়ী, নান্দিনা, বাঘমারা, আদ্রা, চুনিয়াপটল, জামিরা, নান্দিনা, দীঘলকান্দি, কোনারপাড়া, মাজারিয়া, সেংগুরিয়া, আতামারি ও সিধুলী এই ১৫ গ্রামের মানুষকে বাঁশের সাঁকো দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ঝারকাটা নদী পার হতে হয় এছাড়া ওই এলাকার বেশিরভাগ মানুষ কৃষি কাজে নিয়োজিত।যানবাহনের অভাবে মাঠ থেকে ফসল আনা-নেয়া করা বা কেউ অসুস্থ হলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রে নিতে পারেন না কেউ। অসুস্থ রোগীদের পল্লী চিকিৎসকরাই একমাএ ভরসা।জনপ্রতিনিধিদের কাছে দীর্ঘদিন এলাকাবাসী সেখানে একটি সেতু নির্মাণের দাবি জানিয়ে এলেও শুধু আশ্বাস ছাড়া কিছুই মেলেনি।ফলে ভোগান্তি তাদের নিত্যদিনের সঙ্গী।

সাতপোয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ও চর রৌহা গ্রামের বাসিন্দা রেজাইল করিম বলেন, ২০১৩ সালে স্কুলে যাওয়ার সময় নৌকা ডুবে দুই শিক্ষার্থী দ্বিতীয় শ্রেণির অন্তর (৭) ও তৃতীয় শ্রেণির আনিছ (৮) মারা যায়। এরপর গ্রামবাসীকে নিয়ে বছরের পর বছর বসে ঝার কাটা শাখা নদীর ওপর কাঠের সেত ুনির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়।গত ১ নভেম্বর গ্রামবাসীর সঙ্গে বৈঠকে বসে তিনি স্বেচ্ছাশ্রমে ও নিজেদের অর্থে একটি কাঠের সেতু নির্মাণের প্রস্তাব করেন। তাঁর প্রস্তাবে গ্রামবাসী সেতু নির্মাণে সাড়া দেন। গত ৭ নভেম্বর সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। প্রতিদিন গ্রামের নারী-পুরুষ পালা করে কাজ করে যাচ্ছেন।গ্রামের আবদুস সামাদ (৫৬) বললেন, ভোটের আগে যিনি ভোট চাইতে আসেন, তিনিই বলেন যে নির্বাচিত হলে সেতু নির্মাণ করে দেবেন কত মন্ত্রী,এমপি,চেয়ারম্যান-মেম্বার থেকে শুরু করে অনেকের কাছেই ধর্ণা দিয়েছি। কত ভোট গেল, সেতু হলো না।যোগাযোগ ভালো না হওয়ায় এই গ্রামের ছেলে মেয়েদের বিয়ে দিতে সমস্যা হয়। কেউ এই গ্রামে বিয়ের সম্বন্ধ করতে আসতে চান না। সব মিলিয়ে গ্রামের মানুষ নিজেরাই উদ্যোগী হয়ে কাঠের সেতু বানাচ্ছেন।কাঠের সেতুটির দৈর্ঘ্য ৩১০ ফুট ও প্রস্থ ৮ ফুট।সেতুটি নির্মাণ করতে ব্যয় হবে প্রায় ১১ লাখ টাকা। গত ৭ নভেম্বর সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। আগামী ১৫ জানুয়ারির মধ্যে এর নির্মাণ কাজ শেষ হবে।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) সরিষাবাড়ী উপজেলার প্রকৌশলী রকিব হাসান বলেন, ওই গ্রামে পাকা সেতু নির্মাণের প্রাক্কালন তৈরি করে এলজিইডি প্রধান কার্যালয়ে পাঠানে হবে।
সরিষাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শিহাব উদ্দিন আহমদ মনে করেন, এমন মহৎকাজ দেশবাসীকে উদ্বুদ্ধ করবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© All rights reserved © 2020 coxtribune.com
Desing & Developed BY Serverneed.com
error: Content is protected !!